1. zobairahmed461@gmail.com : Zobair : Zobair Ahammad
  2. Jalalhossen555@gmail.com : Jalal Hossen : Jalal Hossen
  3. khorshed.eco@gmail.com : Khorshed Alom : Khorshed Alom
  4. hossaintnt@live.com : Shah Sumon : Shah Sumon
সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ১০:২৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ 
রাস্তা নয় এ যেন মরণ ফাঁদ! চান্দিনার কামারখোলা যুব সমাজের উদ্যোগে ১০০ অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ কামারখোলয় চান্দিনা ছাত্রকল্যাণ সমিতির ইফতার মাহফিল চান্দিনায় কামারখোলা যুবসমাজের অসহায় ৮০ পরিবারে মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ চান্দিনার কামারখোলার মোক্তার হোসেন গ্রাম সংসদ বিষয়ক দক্ষ গবেষক ইন্ঞ্জিঃ আতাউর রহমান গনি কে সভাপতি ও আনিসুর রহমান কে সাধারণ সম্পাদক করে আবেদা নূর ওল্ড স্টুডেন্ট’স এসোসিয়েশন ( আনোসা) এর নতুন কমিটি ঘোষনা। চান্দিনার কামারখোলা কমিউনিটি কমপ্লেক্স মসজিদের উদ্যোগে আসন্ন রমজানের ইফতার সামগ্রী বিতরন বোরকা পরিধান নিষিদ্ধ করেছে শ্রীলংকা সাংবাদিকদের তোপের মুখে বেরোবির অধিকার সুরক্ষা পরিষদের পলায়ন চান্দিনার বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ইচ্ছুক আর্থিক অসচ্ছল শিক্ষার্থীর পাশে চান্দিনা ছাত্রকল্যাণ সমিতি

বেরোবির নির্মাণ কাজের প্রায় ৪৫ শতাংশ কাজ সম্পূর্ণ!

চান্দিনা অনলাইন এক্সপ্লোরার 
  • আপডেট সময়: বুধবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৯৫ বার পড়া হয়েছে 

।।বেরোবি প্রতিনিধি।।
বেরোবি রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা হল ও ড. ওয়াজেদ মিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট ভবন নির্মাণ কাজের প্রায় ৪৫ শতাংশ কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকার প্রকল্প হিসেবে প্রায় শত কোটি টাকার কাজ প্রায় দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে,ইতিমধ্যে ইউজিসির প্রতিনিধি দল সরজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে দেখতে পান প্রায় ৪৫ শতাংশ কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে এবং বাকি কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এ দুটি মেগা প্রকল্পের কাজ ইউজিসি প্রতিনিধি দল পরিদর্শন করে সন্তোষজনক মত প্রকাশ করেছেন।

মেগা প্রকল্প দুটির অনুমোদিত নকশায় নির্মাণ কাজ অত্যন্ত দ্রুতগতিতে সম্পূর্ণ হচ্ছে বলে ইউজিসির তদন্ত কমিটির প্রতিনিধি দল আমাদের প্রতিনিধি কে জানিয়েছেন।

ইউজিসির প্রতিনিধি দল গত রোববার নির্মাণ কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে এসে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের নিয়োগ করা পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশল বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান কর্মকর্তাকে সেখানে উপস্থিত দেখতে পান। এবং তার সাথে কথা বলে তারা নির্ধারিত কাজ দ্রুত সময়ে শেষ করতে হবে বলে নির্দেশ দেন এবং তিনি ও প্রতিনিধি দলকে কাজ দ্রুত শেষ করার আশ্বাস প্রধান করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১৩ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভায় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষ উন্নয়ন প্রকল্পটি অনুমোদন দেয়া হয়। দশ তলাবিশিষ্ট শেখ হাসিনা হলের জন্য ৫১ দশমিক ৩৫ কোটি টাকা এবং ড. ওয়াজেদ মিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট ভবন নির্মাণে ২৬ দশমিক ৮৭ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। ওই সময় উপাচার্য ছিলেন অধ্যাপক ড. এ কে এম নুরন্নবী।

২০১৬ সালের জুন মাসে এ দুটি কাজের জন্য টেন্ডার আহ্বান করা হয়। শেখ হাসিনা হলের কাজের ঠিকাদারি পান আবদুস সালাম জেভি এবং ড. ওয়াজেদ রিসার্চ ইনস্টিটিউটের ঠিকাদারি পান মের্সাস হাবিব অ্যান্ড কোং জেভি। কাজ দুটি শেষ করতে সময় সীমা নির্ধারণ করা হয় দেড় বছর।

নির্মাণ কাজ চলাকালে বর্তমান উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বিএনসিসিও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুমোদিত মূল নকশায় দ্রুত কাজ সম্পূর্ণ করতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কে নির্দেশ প্রধান করেন এবং প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি,শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসিরর প্রতিনিধি দল ও মূল কাজ দ্রুত সম্পূর্ণ করতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কে বারবার স্বরন করিয়ে দেয়।

প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, মূল অনুমোদিত আর্কিটেকচারাল ড্রইংয়ে কিচেন এবং করিডোর অংশ (দুই অংশের ডাইনিং রুমের সংযোগ করিডোর) দুইতলা বিশিষ্ট ছিল। ঐ অংশের ভিত্তি দেয়া হয়েছিল দুইতলা হিসেবে।

পরামর্শক প্রতিষ্ঠান মূল নকশা অনুযায়ী ভবন নির্মাণ করছেন। যা বেরোবিতে ভবন নির্মাণে আধুনিক স্থাপত্য শিল্পের বিকাশ ঘটাচ্ছে বলে শিক্ষা মন্ত্রনালয়,ও ইউজিসি প্রতিনিধি দল মতপ্রকাশ করেছেন।

কয়েকজন প্রকৌশলী জানান, আন্ডার গ্রাজুয়েট লেভেলের হোস্টেল বিল্ডিং নির্মাণে উন্নত দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেল গুলোর মানের সাথে মিল রেখে বর্তমানে বেরোবিতে আবাসিক হোস্টেল নির্মাণ করা হচ্ছে যার প্রতিটি রুমের সঙ্গে এটাচ টয়লেট বসানো হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, প্রকল্প অনুমোদনের জন্য বিলটি মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হলে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি একনেকে বিলটি পাশ করিয়ে দেয় এবং শেখ হাসিনা হল চারতলা পর্যন্ত নির্মাণ করা হয়েছে।

প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির পরামর্শে ডিপিপির মূল্য প্রায় ৫১.৩৫ কোটি ধরে স্টিয়ারিং কমিটির কাছে উপস্থাপন করে পাস করানো হয়।

ইউজিসির সচিব ফেরদৌস জামান, ইউজিসি সদস্য আলমগীর হোসেন ভুইয়া ও দুর্গারানী দাসের তদন্ত কমিটি গত ১৭ জানুয়ারি শেখ হাসিনা হলের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করতে এসে অনুমোদিত নকশায় কাজ শুরু করায় প্রশংসা করেন। এবং তারা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকজনকে অনুমোদিত নকশার বাইরে কাজ না করার ব্যাপারে নির্দেশ প্রধান করেন।

সার্বিক বিষয়ে জানতে উপাচার্য অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিম উল্লাহ বিএনসিসিও স্যার এর সঙ্গে যোগাযোগ করে প্রকল্পের প্রশংসা করেন।

লেখাটি শেয়ার করুন 

আপনার মতামত লেখুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো খবর 
© All rights reserved © 2020 ChandinaOnlineExplorer.com
Theme Customized BY LatestNews