1. zobairahmed461@gmail.com : Zobair : Zobair Ahammad
  2. Jalalhossen555@gmail.com : Jalal Hossen : Jalal Hossen
  3. khorshed.eco@gmail.com : Khorshed Alom : Khorshed Alom
  4. hossaintnt@live.com : Shah Sumon : Shah Sumon
সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০১:০০ অপরাহ্ন

বেরোবি শিক্ষক তরিকুলের উস্কানিমূলক তথ্য এবং গুজবে ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীল অবস্থা

চান্দিনা অনলাইন এক্সপ্লোরার 
  • আপডেট সময়: রবিবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৬১৯ বার পড়া হয়েছে 

আবারও বিতর্কের জন্ম দিলেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভুঁইফোড় সংগঠন সুরক্ষা পরিষদের সহ-সভাপতি এবং রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তরিকুল ইসলাম। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন।
আজ বিকেল ৫ ঘটিকায় তার ব্যক্তিগত ফেইসবুক ওয়ালে মিথ্যা, বানোয়াট এবং বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়ে শিক্ষার্থীদেরকে নাশকতার দিকে উস্কানি দিয়েছেন। সম্প্রতি রসায়ন বিভাগের নিয়োগ বোর্ড অনুষ্ঠিত হয় এবং এ নিয়ে তিনি তার বাক্তিগত ফেইসবুক ওয়াল এবং বিভিন্ন গ্রুপে লিখেন যার খণ্ডাংশ হল, “আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি ফার্স্ট, ডিনস অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত, প্রধানমন্ত্রী গোল্ড মেডেল প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর এ বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি হয় না। অপরাধ বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হওয়া? রসায়ন বিভাগে অবৈধভাবে বিভাগীয় প্রধান নিয়োগ- অবৈধ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি-অবৈধ নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে ফ্যাকাল্টি ফার্স্ট, ডিনস অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত, প্রধানমন্ত্রী গোল্ড মেডেল প্রাপ্ত শিক্ষার্থী বাদ দিয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে”।
এ নিয়ে প্রশাসনের দায়িত্বশীল সূত্র অনুযায়ী, “ বিশ্ববিদ্যালয়ের গোপনীয় বিষয়ে এমন মনগড়া মত তথ্য প্রদান করাই হচ্ছে তরিকুল ইসলামের প্রধান কাজ যা বেরোবি আইন-২০০৯ এবং তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ সুস্পষ্ট লঙ্ঘন , তিনি আরও বলেন তরিকুল সাহেব ক্লাস নেয়ার বদলে নাশকতা করতেই বেশি সিদ্ধহস্ত”।
দৈনিক ভোরের পাতায় প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী সুরক্ষা পরিষদের আহবায়ক ড. মতিউর রহমান এর পরামর্শক্রমে (যিনি জিয়া পরিষদের সাবেক সদস্য, আজিজুল হক কলেজে শিক্ষক থাকাকালীন সময়ে এবং জামাতের সাথে তার রয়েছে গভীর আঁতাত); তিনি বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করার পায়তারা করছেন এবং নাশকতার ঢাল সুরুপ তিনি মনগড়া মিথ্যা তথ্য এবং গুজব ছড়াচ্ছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।
এ নিয়ে সরকারের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের একজনকে জিজ্ঞেস করা হলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, “আমরা তরিকুল সাহেবের গুজব ছড়ানো এবং মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করার পায়তারা নিয়ে প্রশাসনের সাথে আলোচনা করব; এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে নাশকতা হলে সব দায়ভার তরিকুল সাহেবকেই নিতে হবে উস্কানীদাতা হিসেবে; আমি তার গুজব ছড়ানোর তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানাই”।

লেখাটি শেয়ার করুন 

আপনার মতামত লেখুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো খবর 
© All rights reserved © 2020 ChandinaOnlineExplorer.com
Theme Customized BY LatestNews